প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের ম্যাজিক : আইজিপি

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের ম্যাজিক : আইজিপি

Rajshahi_Pet_Care
উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের সংবাদটি শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনঃ- বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‌‘বঙ্গবন্ধুর প্রতিচ্ছবি দেখছি প্রধানমন্ত্রীর মাঝে। বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন সোনার বাংলা গড়ার। তাকে মাঝপথে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তার অসমাপ্ত কাজগুলো বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী।

তাই বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের ম্যাজিক। ’
আজ সোমবার রাতে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত ‘জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক গ্র্যান্ড মাস্টারস দাবা প্রতিযোগিতা’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সহ-সভাপতি চৌধুরী নাফিজ সরাফত।

ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে যেখানে বিশ্বের উন্নত দেশের অর্থনীতি ধসে পড়েছে, সেখানে বাংলাদেশের জিডিপি ৬ ভাগ। করোনা না এলে জিডিপির হার আরও বাড়ত। ’

বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন ও সাউথ এশিয়ান দাবা কাউন্সিল বাংলাদেশের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন আইজিপি। তিনি বলেন, ‘আজকে আমাদের জন্য বিরাট ইভেন্ট। এমন একজন মহয়সী নারী ও প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পেরে আমরা গর্বিত।

আমরা গত বছরেও আয়োজন করেছিলাম। বিশ্বের ১০টি দেশের ৩০ জন ও বাংলাদেশের ৩৪ জনসহ মোট ৬৪ জন খেলোয়াড় এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন।

পুলিশপ্রধান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর একটানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় এসে দেশকে একটি অন্য মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছেন। শ্রীলঙ্কাকে ঋণ দিয়েছেন ২০০ মিলিয়ন ডলার। সুদানকে ঋণ দিয়েছেন আরও ২০০ মিলিয়ন ডলার।

এর জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাই। ২০০৯ সালে ৪৫ ভাগ লোক দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করতেন। এখন ৯ ভাগ মানুষ দারিদ্র্যসীমার মধ্যে বসবাস করছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। দেশবাসী কৃতজ্ঞ। একসময়ে আমরা বলতাম, বিদ্যুৎ আসবে কখন এখন আমরা সেই কথা ভুলে গেছি। বাংলাদেশ ছিল বঞ্চনার দেশ, বাংলাদেশ ছিল রোগ এবং শোকের দেশ। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ মাত্র ২৪ বছরের মধ্যে খালি গায়ের মানুষ, খালি পায়ের মানুষকে দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছেন। আজ দেশে খাদ্য উদ্বৃত্ত। বাঘা বাঘা অর্থনীতিদের মুখে ছাই দিয়ে বাংলাদেশ এখন ডেভেলপমেন্টের ম্যাজিক ফিগারের দেশ হয়েছে।

আইজিপি বলেন, ‘আগামী বছর থেকে নতুন ও প্রতিভাবান খেলোয়াড় খুঁজে বের করতে স্কুলপর্যায়ে দাবা লীগের প্রতিযোগিতা শুরু করব। বাংলাদেশে তিনটি বড় খেলার কথা বললে দাবার কথা বলতে হয়। আমরা প্রথমবারের মতো জেলা পর্যায়ে দাবা লীগের আয়োজন করতে পেরেছি। আমরা এ বছর আরও তিন থেকে চারটি চ্যাম্পিয়নশিপের ব্যবস্থা করেছি। অক্টোবরে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আমরা আর বড় পরিসরে একটি দাবা প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে চাই। ’


উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের সংবাদটি শেয়ার করুন

Discover more from UttorbongoProtidin.Com 24/7 Bengali and English National Newsportal from Bangladesh.

Subscribe to get the latest posts to your email.