২০০০ কোটি টাকা দুর্নীতির দায়ে ফরিদপুরের সাবেক চেয়ারম্যান গ্রেফতার

উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের সংবাদটি শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ।। উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: ফরিদপুরের রাজনৈতিক অনাচারের হোতা, সাবেক স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ছোট ভাই খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবরকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

 

গত সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি ফ্ল্যাট থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। এর আগে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানও ছিলেন তিনি।

 

এক সময়ের ‘মহাক্ষমতাধর’ এই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের পর ফরিদপুর শহরে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা। তাঁরা বলেছেন, দীর্ঘদিন তিনি ফরিদপুরে যাবতীয় চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির নেতৃত্ব দিয়েছেন। তাঁকে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে ফরিদপুরের আকাশ ‘মেঘমুক্ত’ হলো। 

 

বাবরকে গ্রেপ্তারের পর গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা, কোতোয়ালি থানার ওসি এম এ জলিল, ডিবির ওসি রাকিবুল ইসলামসহ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ফরিদপুরের আলোচিত দুই ভাই রুবেল-বরকতের বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থের মালিক হওয়ার পেছনে বাবরের হাত ছিল। তিনি সরকারি দপ্তরের টেন্ডার বাণিজ্য এবং চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকাপয়সা আদায় করতেন। তাঁর ছত্রচ্ছায়ায় শহরে ‘হেলমেট বাহিনী’ ও ‘হাতুড়ি বাহিনী’ নামে দুটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে উঠেছিল। 

 

এসব বাহিনীর সদস্যরা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে বেড়াতেন। ফরিদপুরের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে বিভিন্ন সময় যাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাঁদের অনেকেই আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বাবরের নাম বলেছেন।

 


উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের সংবাদটি শেয়ার করুন

Discover more from UttorbongoProtidin.Com 24/7 Bengali and English National Newsportal from Bangladesh.

Subscribe to get the latest posts to your email.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *